Home  /  বেডরুম

নতুন বাড়ীতে উঠুন, নতুন অ্যাপার্টমেন্টে আসুন বা আপনার পুরানো আবাসটিকেই নতুন করে সাজিয়ে তুলুন, যেটিই করুন , অন্দর মহলে সাজসজ্জা বাইরের সজ্জার মতই গুরুত্বপূর্ণ, কারো কারো মতে আরো বেশি। ইনডোর ডেকোরেশন একই সাথে ফ্যাশন স্টেটমেন্ট, আপনার ব্যক্তিত্বের চিত্র এবং একটি

বইয়ের যত্নে বুক শেলফ এর কোনো বিকল্প আছে বলুন? না নেই। আপনার প্রয়োজনীয় কিংবা প্রিয় সব বইগুলোই আপনি চাইবেন সাজিয়ে রাখতে। তাই না? কিন্তু একটি বুক শেলফ ছাড়া কিন্তু আপনি বইগুলোর পরিপূর্ণ যত্ন নিতে পারবেন না। যতই গুছিয়ে রাখার চেষ্টা করেন।

এই যে, সার্চ ইঞ্জিন দিয়ে এখনই খোঁজ শুরু করেছেন? ভাবছেন কীভাবে বুঝলাম? সহজ ব্যাপার প্রথমবার ডিভানের নাম শুনে আমার হাল আপনার মতই হয়েছিল। তবে এখন আমি ডিভানের অনুগত ভক্ত। এবার ভাবছেন কীভাবে হলাম? তবে চলুন একে একে আপনার প্রশ্নের জটগুলো খোলা

নিশ্চয়ই বিভিন্ন দোকান ঘুরে ক্লান্ত হয়ে পড়েছেন? নয়তো এখনো কোনো ওয়েবসাইট ঘাঁটাঘাঁটি করছেন? এটা সাধারণ ঘটনা। আপনারাও আমার মতো গতানুগতিক নিয়মে বেড কিনতে গিয়ে এমন নাজেহাল অবস্থায় অনেকেই ভুগছেন। এবার দুঃশ্চিন্তার অবসান ঘটাতে এসেছে সুবর্ণ সুযোগ,যা আপনাকে করবে নিশ্চিত। বিচিত্র নকশা, আকর্ষণীয়

নিঃসন্দেহে আপনার বাড়ির সবচেয়ে প্রিয় জায়গা হচ্ছে আপনার বেডরুম। এ বিষয়ে নিশ্চয়ই আপনার কোনো দ্বিমত নেই। কারন প্রতিটি মানুষের জন্য শান্তির নীড় অবশ্যই তার বাড়ি। কিন্তু বাড়ির প্রতিটি রুম তো আর আরাম করতে ব্যবহৃত হয় না। হাতিলের লবি চেয়ার অনেক

আমরা সবাই সর্বদা শান্তির খোঁজে কাটিয়ে দেই আমাদের জীবনের প্রায় অর্ধ সময়। নিজের বাড়িতে আরাম কেদারায় বসে একটু পা নাড়িয়ে কার না এক কাপ চা খেতে ইচ্ছে হয়। এ কল্পনা শুধুই কল্পনাই থেকে যায় এই ইট-পাথরের গড়া টাকার শহর ঢাকা

আমরা শৌখিন বাঙালি হিসেবে বিশ্বে বেশ পরিচিত। তাই বাঙালিরা আরাম এবং শৌখিনতার ব্যাপারে কার্পণ্য করেন না। আমাদের জীবনে অন্য সব আরামের জায়গা অপেক্ষা আমাদের নিজস্ব বিছানা অধিক প্রিয়। সারাদিনের ক্লান্তির নিঃশ্বাস নিতে নিতে যখন ঘরে ফিরে আসা হয় , তখন বিছানার

আমাদের অস্তিত্ব আমাদের নিজের কাছে ভীষণ প্রিয়। আর আমার আমাকে আমারি‌ই সম্মুখে দেখানোর এবং আমাকে সাজিয়ে তোলার একমাত্র গুরুদায়িত্ব এই স্বচ্ছ কাঁচের আয়নার অথবা তার এই আধুনিক যুগের দেওয়া নাম তথা - "ড্রেসিং টেবিলের।" "ড্রেসিং টেবিল" যার অনন্য তম বৈশিষ্ট্য হলো

বিয়ে একটি বিশেষ অনুষ্ঠান। দম্পতিরা দিনটির জমকালো অনুষ্ঠানের সাথে এবং উচ্ছাসের সাথে একত্রিত হয়ে উৎযাপন করে। স্মৃতিতে দিনটি লালিত হয়ে থাকবে সারাজীবন। এটি এমন এক দিন যা তাদের প্রেমের গল্পের একটি নতুন অধ্যায় এবং একটি চির স্মরণীয় ঘটনা চিহ্নিত করে।

কর্মব্যস্ত দিনের শেষে নিজের সাজানো-গুছানো পরিপাটি শান্তির নীড়ে ফিরে প্রশান্তির ছোঁয়া খুঁজতে কার না ভালো লাগে? তাই সবাই চান একান্তই নিজের রুচি আর পছন্দের সাথে তাল মিলিয়ে আপনালয়টিকে সাজিয়ে নিতে। একটা সময় এমন ছিল,ঘর সাজানোতে ব্যবহার হতো ভারি ডিজাইন কিংবা কাঠের