Home  /  বেডরুম

সদ্য পনেরোতে পা দিল মীরা। ইদানীং তার নিজেকে সাজাতে বেশ ভালো লাগে। তাই একটু পরপরই সে মায়ের ড্রেসিং টেবিলের সামনে গিয়ে হাজির হয়। কখনো চুলে বেণি বাঁধে, আবার কখনো মায়ের লিপস্টিক, চুড়ি দিয়ে নিজেকে সাজিয়ে হারিয়ে যায় নিজের জগতে। এ

বেডরুম ভ্যানিটি ঘরের আভিজাত্যের প্রতীক সিনেমার সেটে ‘ভ্যানিটি ভ্যান’ কিংবা ‘ভ্যানিটি ইউনিট’-এর কথা তো আমরা অনেকেই শুনেছি। ভ্যানিটিতে তারকারা সাজগোজ করে। কিন্তু ভ্যানিটি যে শুধুই সিনেমার তারকাদের ব্যবহার্য জিনিস, তা নয়। ভ্যানিটি থাকতে পারে নিজের ঘরেই। আমাদের প্রায় সবার ঘরেই ড্রেসিং টেবিল

আগামী কিছুদিনের মধ্যেই অর্পারা নিজেদের বাসায় উঠতে চলেছে। নিজেদের স্বপ্নের ঘরটি কেমন রূপে সাজবে তা নিয়ে বাসায় সারাদিনই চলছে নানান রকম আলোচনা। এ নিয়ে পরিবারের ছোট থেকে বড় নেয়া হচ্ছে সব সদস্যের মতামত। কেমন হওয়া চাই অর্পার ঘর, বাবা আফজাল

সারা দিনের কর্মব্যস্ততা শেষে সাজানো পরিপাটি নীড়ে ফিরে আসা౼এ তো আমাদের সবারই চাওয়া। এখানেই যেন সব ক্লান্তির অবসান। আর শোবার ঘর হলো পুরো বাড়িতে আমাদের সবচেয়ে আপন জায়গা। এখান থেকেই আমাদের দিনের শুরু, আবার এখানেই সমাপ্ত হয় একেকটি দিন। দিনের

ছোট ঘরেই সৃষ্টি করা যায় মুক্ত, খোলামেলা পরিবেশ আমাদের দেশে একসময় মা-বাবা, দাদা-দাদিদের সাথে যৌথ পরিবারে বসবাসের যে চল ছিল, তা এখন খুব কমই দেখা যায়। ইদানীং যৌথ পরিবারের চেয়ে একক পরিবারই বেশি দেখা যায়। পরিবার ছোট হওয়ার সাথে সাথে বাসাগুলোও

ঘটনা-১: রাইসার নতুন বাসায় বেড়াতে গেছে ওর বন্ধু ফারিহা। বাসাটা বেশ ছিমছাম করে সাজিয়েছে রাইসা। তবে ফারিহার সবচেয়ে ভালো লেগেছে যেই জিনিসটা সেটা হচ্ছে বারান্দার পাশে ছোট্ট একটা বই পড়ার জায়গা বানিয়েছে রাইসা। আর যেহেতু ঠিক বারান্দার পাশে, তাই বেশ আলো-হাওয়া

তিতলির আজ অডিশন। গতকাল রাতেই অডিশনের জন্য ফোন এসেছে। তাই আজ একটু সকাল সকাল ঘুম থেকে ওঠা। কোন জামা পরে তিতলি অডিশনে যাবে, সে সিদ্ধান্ত এখনো চূড়ান্ত করেনি সে। অডিশনের জন্য জামাকাপড় নিয়ে প্রস্তুতির একটা ব্যাপার আছে না? ঘুম থেকে উঠেই

বেডরুম থেকেই শুরু হয় আমাদের দিন। আবার ক্লান্তির রেশ কাটাতে আমরা দিন শেষে ফিরিও সেখানে। বাইরের নানা রকম কাজ সেরে নিজের বেডরুমে ঢোকার আগপর্যন্ত যেন ক্লান্তি ছাড়েই না। কিন্তু সারা দিনের ব্যস্ততা শেষে ঘরে ঢুকে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা জামাকাপড়, কাগজপত্র দেখলে

"আমার ঘরের পর্দাটা একদম হালকা রঙের হবে। সেই পর্দা গলে রোদ ঢুকবে। আর বিছানায় এসে পড়বে তার নরম আলো! ঘুম ভেঙেই (বেডসাইড টেবিল) বেডসাইড টেবিলে রাখা আমার সবচেয়ে প্রিয় ছবিটি দেখতে পাবো।"  বাসার সাজসজ্জা নিয়ে আমাদের জল্পনা-কল্পনার অন্ত নেই! আর সেই

প্রতিদিন সূর্যোদয় ও সূর্যাস্তের মাঝে হাজার রকম আসবাব ব্যবহার করি আমরা। কোনো কোনো আসবাব কয়েকদিনেই হারিয়ে যায় আমাদের ঘর থেকে। সেসব জিনিসপত্রের কথা আমরা আলাদা করে মনেও রাখি না। কিন্তু ভারিক্কি ধরনের আসবাবপত্র বছরের পর বছর বহাল তবিয়তে নিজ জায়গা ধরে