Home  /  যত্নআত্তি

আমাদের রোজকার জীবনের সব কটি অধ্যায়ের সাথে যে একটি আসবাব সব সময় জড়িয়ে থাকে সেটি হলো সোফা। যেমন বাড়িতে আসা অতিথিদের বসতে দিতে সোফা প্রয়োজন, পারিবারিক জমায়েতে জম্পেশ আড্ডার জন্যও সোফা, একসাথে বাসার সবাই বসে আড্ডা দিতেই হোক বা আলোচনাই

রুমানা প্রথম মা হতে চলেছে। এই নিয়ে তার আনন্দ ও উত্তেজনার কমতি নেই। নতুন শিশুকে ঘিরে নানা ধরনের প্রস্তুতি নিচ্ছে রুমানা ও তার স্বামী। গর্ভাবস্থায় নারীর শারীরিক ও মানসিক নানা ধরনের পরিবর্তন হয়। এই পরিবর্তন খুব স্বাভাবিক হলেও এই সময়

দিন ছোট হয়ে আসছে। সন্ধ্যার দিকে হালকা কুশায়া পড়া শুরু করেছে। রাস্তার মোড়ে মোড়ে নতুন করে দেখা যাচ্ছে অস্থায়ী পিঠাপুলির দোকান। সেখানে বাড়তে শুরু করেছে ভিড়। বাতাসে এখন আসন্ন শীতের ঘ্রাণ।  এখনই সময় অন্দরে শীতের আগাম প্রস্তুতি নিয়ে রাখার। বাংলাদেশে শহরগুলোতে

মিজান সাহেব ছবি তুলতে ভালোবাসেন। সময় পেলেই দেশের এখানে-সেখানে ছুটে যান ছবি তোলার জন্য। সেসব ছবি সাজিয়ে রাখতে তিনি নিজের একটি দেয়ালও বানিয়েছেন। যেখানে তার একের পর এক সারি সারি অসাধারণ সব ফ্রেমবন্দী মুহূর্তের দেখা মেলে। নিজেই নিজের মনমতো সাজিয়ে

শহরের ব্যস্ত জীবনে মানসিক শান্তি বজায় রাখতে নিজেকে সময় দেওয়াটা বাধ্যতামূলক হয়ে দাঁড়িয়েছে    মানুষের ঘর হওয়ার কথা তার সবচেয়ে শান্তির  জায়গা। তবে এই কংক্রিটের জঙ্গলে শান্তি পাওয়াটা বড় মুশকিল। নিজের ঘরে থেকেও অনেক ব্যস্ততা, দায়িত্ব আর কাজের ভারে, নিজেকে সময় দেওয়ার

আমাদের নিত্যজীবনে যেমন প্রয়োজন হয় জুতার, তেমনই জুতার জন্য প্রয়োজন হয় জুতার রেক বা তাকের। ঘর থেকে বের হওয়ার আগে এবং ঘরে ফেরার পরই যে আসবাবটি আমাদের সবার আগে ব্যবহার করতে হয়, তা হলো জুতার তাক। আবার শীত, গ্রীষ্ম, বর্ষানির্বিশেষে

নাবিলার পারিবারিক বাসার বেশির ভাগ আসবাবপত্র প্রায় ২০-২৫ বছর আগে ওর মায়ের বিয়ের সময় কেনা। এখন পর্যন্ত সেসব যে শুধু “পারফেক্ট" অবস্থায় আছে, তা কিন্তু নয়, প্রতিটি আসবাব দেখতেও এখনো একদম নতুনের মতো। চাকরির কারণে নাবিলাকে যখন আলাদা বাসা নিতে