Home  /  বাসাবাড়ি

ঘরে বয়োবৃদ্ধ কেউ থাকলে তাকে নিয়ে সবসময়ই বাড়তি চিন্তা থাকাটাই স্বাভাবিক। তার খাওয়াদাওয়া, ঘুম, সুস্থতা সর্বোপরি তার জন্য স্বস্তিদায়ক একটি পরিবেশ সৃষ্টিতে মনোযোগ পরিবারের সকলেরই। সেই মনোযোগের কতটা জুড়ে আছে ফার্নিচারের ভাবনা?   ঘরে বাড়তি ফার্নিচার এড়ানো উচিত পরিবারের প্রবীণ বা বয়োবৃদ্ধ সদস্যরা

আবহাওয়া ও জলবায়ুর বিরূপ প্রভাবে ছয় ঋতুর বাংলাদেশ এখন তিন ঋতুতে গিয়ে ঠেকেছে। গরমের গ্রীষ্ম আর বৃষ্টিময় বর্ষা শেষে আর ক'দিন পরই ঝেঁকে বসবে কনকনে ঠান্ডার ঋতু শীত। ঘরে বাইরে তাই এখন শীতের জন্য চলছে প্রস্তুতি। কেউ হয়তো গরম কাপড়

অফুরন্ত পছন্দের এই যুগে অন্য সবকিছুর মতো, একটি সোফা বেছে নেওয়ার ক্ষেত্রে অসীম বিকল্প রয়েছে। সোফা হল আসবাবের একটি প্রধান অংশ যা প্রতিটি বসার ঘরে থাকে। একটি সোফা নির্বাচন করা হল ঘরের বিন্যাস, নকশা, সজ্জা, শৈলী এবং অন্য সবকিছুর আদলে

গৃহসজ্জায় উজ্জ্বল রঙের ব্যবহার এখনকার নতুন ট্রেন্ড। বোহেমিয়ান ভাবধারায় ঘর সাজাতে হলে উজ্জ্বল, অপ্রত্যাশিত রং একেবারেই অনিবার্য। কিন্তু শুধু হলুদ বা কমলার মতো উজ্জ্বল রংই ঘরে থাকলে তা দেখতে বেশ ভারসাম্যহীন ও অমানানসই লাগবে। চকচকে উজ্জ্বল রঙের সাথে সমতা বজায়

ছোটবেলা থেকে আমরা দেখে আসি মায়েদের জমানোর স্বভাব। দেখতে দেখতে আমাদেরও অভ্যাস হয়ে গেছে জমানোর। পুরোনো জামাকাপড়, বাক্স, আসবাব ঘরের কোণে পড়ে থেকে ধুলো জমায় বছরের পর বছর ধরে, তা-ও ঠিক ফেলে দিতে মন চায় না। এই অব্যবহৃত জিনিসপত্র  ফেলে

শহরের ব্যস্ত জীবনে মানসিক শান্তি বজায় রাখতে নিজেকে সময় দেওয়াটা বাধ্যতামূলক হয়ে দাঁড়িয়েছে    মানুষের ঘর হওয়ার কথা তার সবচেয়ে শান্তির  জায়গা। তবে এই কংক্রিটের জঙ্গলে শান্তি পাওয়াটা বড় মুশকিল। নিজের ঘরে থেকেও অনেক ব্যস্ততা, দায়িত্ব আর কাজের ভারে, নিজেকে সময় দেওয়ার

নতুন বাসা নেওয়ার সময় আমরা অন্যান্য সুবিধার পাশাপাশি খুঁজি একটি খোলামেলা বারান্দা। অনেকই হয়তো চায় বারান্দার সামনে জারুলগাছের ছায়া, অনেকে আবার ভাবে বারান্দা থেকে যদি কোনো লেক দেখা যেত, কী দারুণই না হতো! যদিও সব সময় এমন স্বপ্নের মতো সুন্দর